.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বুধবার, ১২ এপ্রিল, ২০১৭

বৈশাখের কবিতা

(C)Image:ছবি

 





















।।   রফিক উদ্দিন লস্কর ।।

বৈশাখ দিয়াছে ডাক  উড়ায়ে কেতন
প্রকৃতির মাঝে এসেছে নতুন চেতন।
পান্তা ইলিশে দিনভর  হবে মাখামাখি,
উৎসব শুরু যেন হঠাৎ কালবৈশাখী।
বৈশাখ মানে বাংলা নববর্ষের উদ্বোধন,
নাচে গানে কবিতার হরষে হবে বর্ষবরণ।
বসন্ত শেষে নব বার্তা নিয়ে এলো বৈশাখ,
বদল করতে সব পুরানোকে দিয়েছে ডাক।
বৈশাখী ঝড়ে ঝেড়ে যাবে আবর্জনা যতো,,
বৃষ্টি ধারায় মুছে দেবে ধরণীকে কাঁচের মতো।
ঢাকের তালে এলো বৈশাখ বাঙালির ঘরে,
নতুন সাজে ডাকছে এসে আমাদের দ্বারে।
দোকানিরা খুলে দিলো তারই হালখাতা,
প্রবীণ আজ ছেড়ে যাবে বুকে তার ব্যাথা।
সাজ সাজ রব পড়ে গেলো প্রকৃতির মাঝে,
মনের মাঝে বৈশাখী সুর তাই উঠলো বেজে।
নতুনের তরে মনের মাঝে আজ বড়ই হর্ষ,
স্বাগত স্বাগত আমার বাঙালির বাংলা নববর্ষ।

১১/০৪/২০১৭ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি(আসাম)



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন