.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৭

কিছু চাওয়া (কবিতা)

কিছু চাওয়া
রফিক উদ্দিন লস্কর।
-----------------------------------------------------------------------------
জানো! আমার কষ্টের দিবা-রাতি আজ কতটা নির্মম ?
থমকে যায় সময়,শত দুঃখ ঘিরে রাখে আমায় হরদম।
জীবনকে জড়িয়ে ধরে, রয়েছে এক বিষধর কাল ফণী,
কালের যাত্রায়,বিরহ ব্যথায় নিচ্ছে বয়ে সকলই গ্লানি।
জীবনের পথ বেয়ে,নেমে আসে অদৃশ্য কুয়াশার জাল,
ভেদিয়া চলা বড়ো দুর্জয়,উদাস মন হয় বড় বেসামাল।
দেখে দূরের আলো, পিপীলিকা করেছে ডানা প্রসারণ,
দেখিতে আলোর মুখ, বড়ই উৎসুক আজ হয়েছে মরণ।
মেঘের কাছে হেরেছে আকাশ, মেঘ নেমেছে বৃষ্টি ধারায়,
মেঘলোকে আজ, পূর্ণিমা চাঁদ তার স্নিগ্ধ জোছনা হারায়।
ভালোবাসার নামে, বিশ্বাসে জীবন সঁপে দিয়েছি যে তারে,
তার ভালোবাসা আজ টেনে নেয় মোরে মৃত্যূর দুয়ারে।
প্রেম চাই, প্রেম দাও আজি রাঙাতে মোর পিয়াসী পরাণ,
ভেঙে ফেলো তোমার হৃদয়ের দ্বার, আর থেকো না পাষাণ।
আজ করোনা যতই বারণ,হৃদয়ে এঁকে দেবো প্রেমের ছবি,
প্রেমের অমূল্য গাঁথা, যুগে যুগে লিখে যাবে কতশত কবি।
             ********************
২১/০৪/২০১৭ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি(আসাম)




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন