.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শনিবার, ৮ এপ্রিল, ২০১৭

খুঁজে বেড়াই

(C)Image:ছবি

।।   রফিক উদ্দিন লস্কর ।।









ন আমার ঘুরে বেড়ায় দূর থেকে আর দূরে,
কোথায় গেলে পাবো খুঁজে আমার চাওয়ারে।
রাত বিরেতে খুঁজে থাকি চাঁদ তারাদের মাঝে,
সকাল  বেলায় রবির করে দুপুর নাহয় সাঁঝে।
রঙধনুর ঐ রঙের মেলায় মন ছুটে যায় চলে,
মেঘলাকাশে পাগলা হাওয়ায় মেঘে দুলে দুলে।
সবুজ বনের তরুর ভিড়ে পাখপাখালির মাঝে,
খুঁজি আমি মাঠের মাঝে চাষার ক্ষেতের কাজে।
বেলার শেষের পাখির দলে সামিল হয়ে যাই,
অনেক খুঁজে হলাম সারা পাওয়ার আশা নাই।
নদীর জলের নায়ের পালে পাগলা সমীরণে,
ঘুরে বেড়াই বাদলা দিনে আলো ছায়ার সনে।
সুখ পাখি তুই কোন কাননে বাসা বেঁধেছিস?
তোর কারণে ঘুরে ঘুরে হারিয়েছি আজ দিশ।
মহাকালের ঐ ঘূর্ণিপাকে ঘুরছি দেশে দেশে,
অচিন দেশে অচিন বেশে আমি এলোকেশে।

০৮/০৪/২০১৭ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি(আসাম)



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন