.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ১১ আগস্ট, ২০১৭

মেঘাগম


।। অভীক কুমার দে ।। 

(C)Image:ছবি













.
মেঘলা, তোর বৃষ্টি দেখি না মেঘে,
অথচ ভিজে যেতে দেখি বুক
মাটি ছোঁবার আগেই...
#
মেঘলা, তুই বড়োই মায়া জানিস,
আকাশ- মাটির মাঝামাঝি মন বুঝেই থাকিস।
তবুও ভয় হয়,
যখন ঠান্ডা অভিমান গুমোটবাঁধে...
#
মেঘলা, তুই কি জানিস না--
যৌবন মানেই মরশুমে আলোঢাকা নয় ?
বাতাস ছুঁয়ে দিলেই তুলো গা উড়ে যাবে...
#
মেঘলা, তোর রূপ বদলাতে দেখছি,
ভিন্নরূপ যদিও নীলের ঘনত্ব বোঝে না, তবু--
রঙ ছড়ালেই প্রেমিক যেমন...



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন