.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ৩ নভেম্বর, ২০১৭

পাশের টুপি

।। অভীক কুমার দে ।।
(C)Image:ছবি

















.
তেমন নম্বর জোটেনি, পাশ করেছি,
দপ্তরের একটা কাগজ দিয়ে কেউ বলেছিল পাশ কেটে এসেছি।
.
মাধ্যমিকের বছর, তখন ছোট উত্তরে মোট বিশ,
বাকি সব বিষ হজম করে উগরে দিলে
বাঁশের খুটির মার থেকে রেহাই,
অথচ সে বছর নিম্নচাপের সাথে হায়নাবাজিও ছিল
শুনেছি, শহরে গিয়ে খাতা দেখবার খরচপত্র পঞ্চাশ শতাংশ 

বেদখল নিয়েছে পর্যবেক্ষক নামের পিশাচদল
বাদবাকি নম্বর অনেক তেলে ভাজা হলে পাশের টুপি
কারো মাথায় তেলদক্ষিণা হয়ে ঘোরে।



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন