.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

শুক্রবার, ১০ নভেম্বর, ২০১৭

আত্মপ্রচার


         ।।    রফিক উদ্দিন লস্কর   ।।

আত্মপ্রচার, কাল পাত্রের প্রভেদ নেই,
নিজেকে ঝুলিয়ে রেখেছেন মগডালে।
হাসির খোরাক! কত অট্টহাসি, চাপা হাসি।
আরে! বসে বসে দেখছেন! কত খুশি!
কথার ফুলঝুরি বারুদের মতো।
বজ্রের মতো বিকট শব্দ!
ধোঁয়াটে শহর, নাসিকায় আসেনি ঘ্রাণ।
বস্তিতে রাতকানার প্রকোপ,এখন শহরময়
ধূলোর ঝড়ে নাকাল, চোখে মুখে বীভৎস রঙ।
কাঁদুনে গ্যাসে লেপটে আছে পাড়া প্রতিবেশী
মাঘের শীতে আর বেরোয় নি কেউ!
বনরাজের সাম্রাজ্য বেশ বিস্তারিত....।
বৃষ্টির অপেক্ষা, কবে মুছে দেবে? 
উজ্জ্বলিত হবে সকল কিছু, খাদের যবনিকা।
------------------------------------------------------------
১০/১১/২০১৭ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি (আসাম-ভারত)




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন