.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বুধবার, ১০ জানুয়ারী, ২০১৮

ভালো আছি


     ।।    রফিক উদ্দিন লস্কর  ।।

আমি আছি এখন সূর্যের কাছাকাছি
আর দেখতে চাইনা তোর পোড়ামুখ।
তুই সুখে থাক্ হতে চাইনা ভাগিদার
অগ্নিগৃহে থাকি তাই ছাই হয়েছে বুক।
পড়ে থাক্ তোর কুসুম বিছানো পথ
ভুলেও না যাই যেন আর কোনদিন।
কোন কষ্ট হয়না এখন কণ্টক পথে
নীবর যাত্রা তাই পা দু'টি হয় রঙিন।
ভাবনার জগতে তুই অবাধে চলিস্
আর কোনদিন কেহ দেবেনা বাধা।
দূর হতে নীরবে দেখে দেখে যাবো
ভুলেও কোনদিন ছুঁড়বোনা কাদা। 
ভুল করে কোনদিন যদি মনে পড়ে
পিছনে তাকালে শুধু দেখবে ছায়া।
সুর্য অস্ত যাবে তবুও থাকবে কিরণ
পড়ে রবে প্রাণহীন এক শুষ্ক কায়া।

১০/০১/২০১৮ ইং
নিতাইনগর,হাইলাকান্দি (আসাম)




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন