.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বুধবার, ৩ জানুয়ারী, ২০১৮

~~~আশার বাণী ~~~

বিশ্বজোড়া 'স্যান্টা'  চাই ,এটা নয়তো ওটা দাও ভাই ...'স্যান্টা' যে এক কল্পশক্তি ,প্রবীণদের প্রতি বাড়ায় মায়া ,বাড়ায় ভক্তি l শিশুর প্রতি অন্তপ্রাণ ,আদরে আদরে বাড়ায় মান l 'ক্রিস্টমাস'এর এই হিমেল শীতে ,মাথায় টুপি ,হাতে দস্তানা ,লাল-ধোসায় নিজেকে ঢেকে ,আসে আনন্দ  দিতে  ভরা ঝুলি হাতে l ঝুলিতে  তাঁর নানা উপহার ,হাসি ফোটাবার নানান সামগ্রী বাহার l সাদা-দাড়ি তাঁর বয়স ও অভিজ্ঞতার  প্রতীক ! তা সত্ত্বেও আজ তাঁর অবস্থা বেগতিক !এই ডিজিটাল যুগে আজও জীবন-যাত্রার  এ হাল দেখে , অবাক 'স্যান্টা'  অগ্রগতির বাঁকে !  আজ বুঝি তাঁকে Fantasy ছেড়ে ধরতে  হবে হাল !এমন এগিয়ে বিজ্ঞান ও বুদ্ধি ,ভেবেই সে বেহাল !কোথায় বল ,কোথায়  শৌর্য্য ,কোথায় সেই চির আশ্রয় যৌবন !? বেহাল বিশ্ব আজ বুড়োর  ঘাড়ে ফেলছে কি চাপের বাণ !
      
হাতটি জুড়ে বলছে স্যান্টা ----
বাস্তব জোয়ালে ফেলোনা আমায় , এ যে তোমাদের সৃষ্টি ! তোমাদের দায় !আছে উপায় ,শোনো আমার আশার বাণী -----
বর্ষবরণ করো নিয়ে লক্ষ্য অনেকখানি  ....পূরণ করো যত আছে ঘাটতি ও খামতি !  মেটাও নিরাশা ঝরাও শান্তি ...এতেই পূর্তি বিশ্বের আর্তি ...থাকতে দাও ' স্যান্টারে '  ঝুলি হাতে কচি-কাচাদের রূপকথার জগতে ... মনের আনন্দে বাড়বে  তাঁরা বিবেক ও বুদ্ধি সহ সময়ে বাস্তব জগতে ...ধোঁয়াশা সব যাবে কেটে বুদ্ধি-বিবেকের  দাপটের চোটে !

     #ঝোড়োমেঘ সংকলন #
         (সিক্তা বিশ্বাস)
           29 -12 -17  ইং ,
              শিলং l




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন