.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮

সামনে চলো

  

























   ।।         রফিক উদ্দিন লস্কর         ।।

দুঃখ আছে সুখের অভাব হাসির মাঝে রাগ ,
ভালোবাসা তো দূরের কথা সবাই করে ত্যাগ।
মিশতে গেলে এলার্জি বাড়ে হয়না কিছু কাজ
সবুজ বিশ্বে দিনেরাতে ধুলো ঝড়ের রাজ।
পুণ্য কাজে হাত লাগালে অনেকে ভাবে পাপ,
মহৎ হলে একাই পারবে পেরোতে কঠিন ধাপ।
নির্বোধ আর অহংকারী সে কি কভু জানে?
ভালোবাসলে ঘুরে বসে উল্টোরথে টানে।
হাসিমুখে বরণ করে সাজিয়ে ফুলের ডালি,
ভাবনা যদি তার মন্দ হয় পড়বে মুখে চুনকালি।
সাহস করে নির্বিবাদে এগিয়ে চলো সামনে,

অহংকারীর যে পতন হয় সর্বলোকে জানে।

                        **********
১২/০২/২০১৮ইং
নিতাইনগর, হাইলাকান্দি (আসাম-ভারত)




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন