.“...ঝড়ের মুকুট পরে ত্রিশূণ্যে দাঁড়িয়ে আছে, দেখো স্বাধীন দেশের এক পরাধীন কবি,---তার পায়ের তলায় নেই মাটি হাতে কিছু প্রত্ন শষ্য, নাভিমূলে মহাবোধী অরণ্যের বীজ... তাকে একটু মাটি দাও, হে স্বদেশ, হে মানুষ, হে ন্যাস্ত –শাসন!— সামান্য মাটির ছোঁয়া পেলে তারও হাতে ধরা দিত অনন্ত সময়; হেমশষ্যের প্রাচীর ছুঁয়ে জ্বলে উঠত নভোনীল ফুলের মশাল!”~~ কবি ঊর্ধ্বেন্দু দাশ ~০~

বুধবার, ১১ এপ্রিল, ২০১৮

ভাঙা দুয়ারে

ডানা যার ভেঙে যায় কি করে সে উড়ে
মনটাই ভাঙা তার ভাবনার ঘরে ।
কাঁচ ভাঙা ভালবাসার বুক ভাঙা কষ্ট
কুল ভাঙা ঢেউ তুলে  নিরলস আবিষ্ট ।
ঘুম ভাঙা চোখ ভাসে বাঁধ ভাঙা জলে
ভালবাসা ঘর ভাঙে ভাঙা এ কপালে
রাত কাঁদে দেউলিয়া, ভুল ভাঙা মনে
সাজানো স্বপ্ন ভাঙে ক্ষণিকের ভুলে
আকাশটা ভেঙে যত বৃষ্টি যে হয়
সিঁড়ি ভাঙা প্রেম  তারে জেগে জেগে কয়
অভিমান ভেঙে যদি মনে পড়ে মোরে
আবারো এসো ফিরে ভাঙা এ দুয়ারে।




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন